শবে বরাত কত তারিখ ও শবে বরাত সম্পর্কে হাদিস কি ?

শবে বরাত কত তারিখ , শবে বরাত সম্পর্কে হাদিস কি ?

শাবান মাস আসলেই মানুষের মাঝে কয়েকটি বিষয় জানার জন্য আগ্রহ হয়ে থাকে যে, ১/ শবে বরাত কত তারিখ অথবা শবে বরাত কত তারিখে ? ২/ শবে বরাতের ফজিলত কি ? ৩/ শবে বরাত সম্পর্কে হাদিস কি? ৪/ শবে বরাতের নামাজের নিয়ত কি ? ৫/ শবে বরাতের করণীয় ও বর্জনীয় কি ? ইত্যাদি নানা বিষয়। আমরা প্রত্যেকটা বিষয় নিয়ে আলোচনা করব এক এক করে।

শবে বরাত কি ?

শবে বরাত এটা ফারসি শব্দ বরং আরবি শব্দ নয়। অর্থাৎ মুক্তির রাত। সাধারণত আমরা শবে বরাত শাবান মাসের ১৫ তারিখে পালন করে থাকি। হাদিসে ও শাবান মাসের ১৫ তারিখের কথা বলা হয়েছে । তবে শবে বরাত বা লাইলাতুল বরাত বলে কোরআন ও হাদীসে কোথাও উল্লেখ করা হয়নি। হাদিসে এ রাতকে বলা হয়েছে লাইলাতু নিছফি মিন শাবান। অর্থাৎ শাবান মাসের মধ্য দিবসের রজনী।

শবে বরাত সম্পর্কে হাদিস

হযরত মুআজ ইবনে জাবাল রাদিয়াল্লাহু থেকে বর্ণিত রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন : আল্লাহ তাআলা শাবান মাসের মধ্য দিবসের রজনীতে সমস্ত মাখলুকের প্রতি মনোযোগ আরোপ করেন। মুশরিক ও বিদ্বেষ ভাবাপন্ন ব্যক্তি ছাড়া সকলকে আল্লাহ মাফ করে দেন। ( সহিহ ইবনে হিব্বান হাদিস নাম্বার : ৫৬৬৫ )

আরো পড়ুন : ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার গড়ে মাসে লক্ষ লক্ষ টাকা ইনকাম করুন

শবে বরাতের ফজিলত

১/ হযরত আয়েশা রাযিআল্লাহু তা’আলা আনহা থেকে বর্ণিত। দীর্ঘ একটা হাদিস। এই হাদীসের শেষে রাসূলুল্লাহ সাল্লাম বললেন: তুমি কি জানো এটা কোন রাত ? তখন আয়েশা রাযিয়াল্লাহু আনহা বলেন আল্লাহ এবং তাঁর রাসূল ভালো জানেন। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেন এটা হল অর্ধ শাবানের রাত। আল্লাহ এরাতে তার বান্দাদের প্রতি মনোযোগ দেন, ক্ষমা প্রার্থনা কারীদের ক্ষমা করে দেন, অনুগ্রহ প্রার্থীদের অনুগ্রহ করেন এবং বিদ্বেষ পোষণ কারীদের তাদের নিজ অবস্খাতেই ছেড়ে দেন। (শুআবুল ঈমান ৩/৩৮২ )

২/ রাসূলুল্লাহ (সা:) বলেন : আল্লাহ তাআলা শাবান মাসের মধ্য দিবসের রজনীতে সমস্ত মাখলুকের প্রতি মনোযোগ আরোপ করেন। মুশরিক ও বিদ্বেষ ভাবাপন্ন ব্যক্তি ছাড়া সকলকে ক্ষমা করে দেন।

শবে বরাত কত তারিখ বা শবে বরাত কবে ?

2021 সালের শবে বরাত হল 28 মার্চ দিবাগত রাত্রে

শবে বরাতের নামাজের নিয়ত কি ?

এ রাতে নির্দিষ্ট কোন নামাজ নেই ।.তবে নফল নামাজ পড়তে পারেন । আর আপনি যদি নফল নামাজ পড়তে চান তাহলে অন্যান্য সময় যেভাবে নফল নামাজ পড়েন এ সময় সেইভাবেই পড়বেন। আলাদা কোন নিয়ত নাই ।

আরো পড়ুন : বাংলাদেশীদের জন্য অনলাইনে টাকা ইনকাম খুব সহজেই

শবে বরাতে করণীয় বিষয়গুলো:

১ ) আমাদের তওবা করা উচিত। তওবা এ রাতের সবচেয়ে বড় আমল হতে পারে।

২) নফল নামাজ পড়া উচিত। এ ব্যাপারে নির্ধারিত কোন নামাজ নেই। যত পড়তে পারেন।

৩) কোরআন তেলাওয়াত করা উচিত।

৪) বেশি বেশি জিকির করা উচিত।

৫) এ রাত্রিতে দীর্ঘ সেজদায় রত হওয়া উচিত।

শবে বরাতে বর্জনীয় বিষয়গুলো:

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন : শবে বরাত কত তারিখ ও শবে বরাত সম্পর্কে হাদিস কি ?

Get the Medium app

A button that says 'Download on the App Store', and if clicked it will lead you to the iOS App store
A button that says 'Get it on, Google Play', and if clicked it will lead you to the Google Play store